বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৮ জুন ২০২২

পরিচালক

. মো. ইসমাইল হোসেন,পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত), বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট 

ডঃ মোঃ ইসমাইল হোসেন ১৯৬৮ সালে দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি আলোকদিহি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৮৪ সালে প্রথম বিভাগে এসএসসি পাস করেন। এছাড়াও তিনি নীলফামারীর সৈয়দপুর কলেজ থেকে ১৯৮৬ সালে প্রথম বিভাগে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। এরপর তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহ থেকে ১৯৯০ সালে বিএসসি (কৃষি) (১৯৯৪ সালে অনুষ্ঠিত পরীক্ষা) এবং ১৯৯৭ সালে ক্রপ বোটানিতে এম.এস. ডিগ্রী  সফলভাবে সম্পন্ন করেন।  ড. ইসমাইল ১৯৯৮ সালের জুন মাসে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে, বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজারে বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে তিনি ২০০৬ সালে এসএসও পদে, পিএসও পদে ২০১২ সালে এবং সিএসও পদে ২০১৭ সালে প্রমোশন পান। বর্তমানে  তিনি ০১ জুন, ২০২২ থেকে বিটিআরআই-এর ভারপ্রাপ্ত পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন ।

তিনি ১৯৯৯-২০০০ সালে ভারতে "বেসিক কোর্স ইন টি ম্যানেজমেন্ট " এর জন্য কলম্বো প্ল্যান স্কিমের অধীন স্কলারশীপ লাভ করেন।   তিনি ২০১৪ সালে HEQEP-AIF-UGC (CP-3021/BAU)  প্রোগ্রামের অধীনে পিএইচডি ফেলোশিপ লাভ করেছিলেন এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ বোটানী বিভাগের অধীনে জার্মপ্লাজম সংগ্রহ এবং চায়ের খরা সহনশীল জাতের স্ক্রিনিং এর উপর পিএইচডি সম্পন্ন করেন। তিনি ২১টিরও বেশি দেশীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে  বৈজ্ঞানিক গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন। ২০১৭ সালে ড. ইসমাইলকে  সুঘ্রাণ এবং খরা প্রতিরোধীবিশিষ্ট  বিটি ১৯ ক্লোন  এবং চমৎকার কাপ কোয়ালিটি সম্পন্ন বিটি ২০ ক্লোন অবমুক্তির জন্য  একজন সফল গবেষক হিসেবে বাংলাদেশ চা বোর্ডের সম্মানিত চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট প্রদান করেছেন । তিনি  চায়ের টেকসই উদ্ভিজ্জ বংশবিস্তার কৌশল বের করেছেন। তিনি ২০১০ সাল থেকে বিভিন্ন চা বাগানের কারখানা, বিভিন্ন চা ক্রেতা এবং সেনাবাহিনী ও নৌবাহিনীর অফিস থেকে সরবরাহ করা চায়ের নমুনাগুলি বিশ্লেষণ করছেন। ড. ইসমাইলকে একজন পেশাদার টি টেস্টার হিসাবে বিবেচনা করা হয় এবং বিভিন্ন ব্রোকিং হাউসের পেশাদার টি টেস্টারদের অংশগ্রহণে কেন্দ্রীয়, ভ্যালীভিত্তিক এবং গ্রুপভিত্তিক চা টেস্টিং সেশনের আয়োজন করেন।  ডঃ ইসমাইলই প্রথম মানবস্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী অনন্য বৈশিষ্টের অধিকারী গ্রিন টি  এবং বিভিন্ন প্রকার ভ্যালু এডেড টি পরীক্ষামূলক ভাবে তৈরী করেন । ২০১০ সাল থেকে ড. ইসমাইল হোসেন প্রতি বছর "বাংলাদেশের সেনা কর্মকর্তাদের জন্য টি টেস্টিং এবং মান নিয়ন্ত্রণ কোর্স" এর সমন্বয়কারী এবং প্রশিক্ষক হিসাবে একটি  কোর্স পরিচালনা করছেন।      

ডঃ ইসমাইল  হোসেন বিবাহিত এবং আল্লাহর রহমতে সৌভাগ্যবান ৪ সন্তানের জনক।                         

 

Dr. Md. Ismail Hossain was born in a respectable Muslim family at Chirirbandar in Dinajpur in 1968. He passed SSC examination with 1st division in 1984 from Alokdihi High School. He also passed HSC examination with 1st division in 1986 from Saidpur College, Nilphamari. Then he obtained B.Sc. Ag. (Hons) degree in 1990 (Exam held in 1994) and MS in Crop Botany in 1997 successfully from Bangladesh  Agricultural University, Mymensingh. Dr. Ismail joined the Botany Division, Bangladesh Tea Research Institute, Srimangal, Moulvibazar as Scientific Officer in June 1998. Then he was promoted to SSO in 2006, PSO in 2012 & CSO in 2017. Now he is serving BTRI as Director (In-charge) from 01 June 2022.

He was awarded a Scholarship by Colombo Plan Scheme for “Basic Course in Tea Plantation Management in India” during 1999 -2000. Dr. Ismail Hossain was awarded Ph.D. fellowship in 2014 under HEQEP-AIF-UGC program (CP-3021/BAU) and completed his Ph.D. under the Department of Crop Botany, Bangladesh Agricultural University on germplasm collection and screening of drought-tolerant variety of tea. . He has published more than 21 scientific national and international papers. In 2017 Dr. Ismail was awarded a certificate from the honorable Chairman, Bangladesh Tea Board as a successful researcher for the release of BT19 as a sweat flavoury and drought hardy clone and BT20 as an excellent cup quality clone. He has developed sustainable vegetative propagation techniques. He has been analyzing tea samples: supplied from the factory of the tea estates, tea buyers, Army and Navy offices since 2010. Dr. Ismail is considered to be a professional tea taster and arranges central, valley and group tea tasting sessions with the participation of professional tea tasters from different broking houses every year. Bearing unique characteristics of health benefitted green tea production and different kind of value added tea production in BTRI facility has been initiated experimentally by Dr. Ismail. From 2010, Dr. Ismail is conducting a certificate course as a Coordinator and Trainer of “Tea tasting and quality control course for the Army officers of Bangladesh” every year.

Dr. Ismail is married and father of 4 Allah gifted lucky sons.

 


Share with :

Facebook Facebook